Monday, October 24, 2016

যশোরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ইন্টারনেটে, গ্রেপ্তার ৩




বিশেষ প্রতিনিধিঃ
যশোর সদর উপজেলায় এক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে  ধর্ষণ করে ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়। স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভিডিও করে তা  ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে যশোর মডেল থানার পুলিশ। গতকাল রবিবার তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, অভিযুক্ত মুরাদের মা নূরজাহান, রাসেল ও ইসরাফিল নামে এই ৩ ব্যাক্তি। গতকাল যশোর কোতোয়ালী  মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন জানান, ওই ঘটনায় তাদের নামে থানায় মামলা করা হয়েছে। আর  মূলহোতা আসামী মুরাদকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান। 

এক বিস্তৃত সূত্রে জানা গেছে যে, ১৮ অক্টোবর সদর উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির  ছাত্রীকে প্রতিবেশী মুরাদ বিয়ে করবে বলে অনেক দিন যাবত ধর্ষণ করে আসছে। মুরাদ ধর্ষণ করার পর সেই চিত্র মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। তারপর আসামী মুরাদ সেই ভিডিও চিত্র ইসরাফিল ও ফাতেমা নামে দুই জনের সহযোগিতায় নেটে ছড়িয়ে দেয়। এলাকাবাসী জানায়, বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার গ্রামে সালিশ বৈঠক করা হয়েছে। কিন্তু ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর পরিবার কোনো  বিচার না পেয়ে রোববার সন্ধ্যায় যশোর মডেল থানায় মামলা করেন। পুলিশ জানায়, মামলায় কয়েকজন গ্রাম্য মাতব্বরের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন