Saturday, October 1, 2016

তোমাদের জন্য তোমাদের জীবনব্যবস্থা আর আমাদের জন্য আমাদের জীবনব্যবস্থা


ইসলামে মানুষের সত্ত্বা ও স্বাধীনতাকে নিশ্চিত এবং কোন প্রকার চাপ ব্যতীত কেবল জ্ঞানের আলোকে সত্য এবং জীবনের মর্ম ও সঠিক পথ ঊপলব্ধির সুযোগ করে দিয়ে বলা হয়েছে, " তোমাদের জন্য তোমাদের জীবনব্যবস্থা আর আমাদের জন্য আমাদের জীবনব্যবস্থা। " (সুরা কাফেরুন) অর্থাৎ নিজের দ্বীন সম্পর্কে আপোষ বা নিরপেক্ষ না হয়ে অটল থেকেও অন্যের দ্বীন বা মতাদর্শের ও অধিকার স্বীকার করে নেয়া, কারো মতপথের বিপরীত কোন কিছু বাধ্যতামূলক চাপিয়ে না দেয়া, আক্রান্ত না হওয়া পর্যন্ত কেবল জ্ঞানের মাধ্যমে আদর্শিকভাবে মোকাবেলা করা।

উপাস্য, আরাধ্য , জাতীয়তা, জীবনদর্শন নির্বিশেষে তথা মুসলিম অমুসলিম, মুমিন-কাফের প্রত্যেকে নিজ নিজ বিশ্বাস ও জীবন চেতনার উৎস, মূল,পথ পদ্ধতি নিয়ে ব্যক্তি পর্যায়ে একে অন্যের হস্তক্ষেপ ছাড়াই এবং কারো নিকট জওয়াবদিহী না করেই এ দুনিয়ায় চলতে পারার অধিকার আল্লাহতায়ালার হাবীব ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া ছাল্লাম দিয়েছেন এবং চুড়ান্ত বিচার ও জওয়াব কেবল আল্লাহতায়ালাই নিতে পারেন। কিন্তু ইসলামের ছদ্দনামধারী অথচ প্রকৃত ইসলামের শত্রু এসব মৌলবাদ আভিহিত বাতেল ফেরকা সেখানে অন্যের পথ মত ব্যক্তিত্বের স্বাধীনতা অধিকার এমনকি মৌলিক মানবাধিকার পর্যন্ত জবরদস্তি পদদলিত করে দ্বীনের পবিত্র নাম কলংকিত করে। যে যুগে যখন যেখানে খারেজী শিয়া ওহাবী ইত্যাদি বাতেল ফেরকা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সমাজে বা রাষ্ট্রে সেখানেই ঈমান হরণ ও দ্বীন বিকৃতির সাথে সাথে ব্যক্তিস্বাধীনতা মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত হয়ে আইয়ামে জাহালিয়াতের বিভীষিকা নেমে এসেছে।

কোরআন পাকে যেখানে বলা হয়েছে দ্বীনে কোন জবরদস্তি নেই, (সুরা বাকারা, আয়াত-২৫৬) এরা সেখানে দ্বীনের শিক্ষা ও মর্ম লংঘন করে দ্বীনের নামে আল্লাহর আইনের নামে প্রতারনা করে মানুষের আল্লাহ প্রদত্ত মৌলিক অধিকার ব্যক্তি স্বাধীনতা এমন কি ভোটাধিকার পর্যন্ত হরণ করে নিপীড়ন মূলক ভাবে নিজেদের মনগড়া বিকৃত আইন আমল ফতোয়ার নামে সমাজে রাষ্ট্রে নিজেদের দলীয় বা গোত্রীয় ত্রাস সৃস্টি করে।

বস্তুত যে কোন ধর্মের বা মতবাদের বিকৃত মৌলবাদ সত্য ও মানবতার বিরদ্ধে খুবই ভয়াবহ বিষয় যারা অন্ধভাবে জোরপূর্বক শক্তি প্রয়োগে নিজেদের সব কিছু অন্যের ঊপর চাপিয়ে দিতে চায় এবং অন্যের স্বাধীনতা অস্বীকার করে। প্রকৃত ইসলামে এটা সম্পূর্ণ হারাম।

- ইমাম হায়াত।


শেয়ার করুন