Thursday, October 27, 2016

দিনাজপুরে পাঁচ বছরের পুজাকে ব্লেড দিয়ে কেটে যৌনাঙ্গের প্রবেশপথ বড় করে ধর্ষন


বিশেষ প্রতিবেদনঃ
ধর্ষন করার আগে ব্লেড দিয়ে কেটে পুজার যৌনাঙ্গের প্রবেশপথ বড় করা হয়। তাকে আটকে রেখে টানা ১৮ ঘন্টা ২ জন হায়েনা রেইপ করে!! এই ইস্যুতে ফেসবুক গরম হবেনা। পত্র পত্রিকায় বড় করে লেখা হবে না,টিভি টকশো গুলোতে আলোচনার ঝড় উঠবে না। কেন?????? হ্যাঁ আমি ৫ বছর বয়সী শিশু পূজা দাসের কথা বলছি,, যে মেয়েটি ধর্ষণ কাকে বলে এখনো জানে না।

পূজা দাস আপনার আমার বোন কিংবা সন্তানের মত। বাড়ি দিনাজপুর। গত বুধবার তাকে ধর্ষন করে মানুষরুপী জানোয়ার, চার সন্তানের জনক, ৩৮ বছর বয়সী, সাইফুল নামের এক পাপিষ্ঠ। পুলিশ প্রথমে মামলা নিতে না চাইলেও
পরে গ্রামবাসীর আন্দোলনের মুখে মামলা নিতে বাধ্য হয় এবং সাইফুলকে গ্রেপ্তার করে। মিডিয়া এই ব্যাপারে নিশ্চুপ। আর মানবতাবাদী, সুশীল নামের কুশীলরা ও নিশ্চুপ, কিন্তু কেন এই নীরবতা, কারণটা আমার জানা নেই।

এই দেশে তনু, রিশতা, খাদিজাদের জন্য ফেইসবুকে ইভেন্ট খোলা হয় যদিও কোন এক আশ্চর্য কারণে এসবের বিচার আর হয় না। অথচ, ছয়দিন হয়ে গেল একজন মানবতাবাদীকেও দেখলাম না প্রতিবাদ করতে। পূজার জন্য সবাই নিশ্চুপ। কিন্তু কেন...?

এই রক্তের মিছিলে আর কত লাশ যোগ হলে জেগে উঠবে আমাদের বিবেক..? বর্তমানে পূজা মেডিকেলে ভর্তি,মৃত্যু
যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে।

শেয়ার করুন