Sunday, October 23, 2016

ছুন্নীরাই একমাত্র বেহেশতী


কলামঃ
আল্লাহপাক বলেছেন, 'অতঃপর আমি যাদেরকে কিতাবের অধিকারী করেছি, তাদেরকে আমি আমার বান্দাদের মধ্য হতে  (রাসূলকে মানার জন্য)  মনোনীত করেছি। তাদের কেউ কেউ নিজেদের প্রতি অত্যাচারী, কেউ মধ্যপন্থা অবলম্বনকারী এবং তাদের মধ্যে কেউ কেউ আল্লাহপাকের আদেশে কল্যাণের পথে এগিয়ে গেছে। এটাই  মহাঅনুগ্রহ।  তারা বেহেশতে প্রবেশ করবে। তথায় তারা স্বর্ণ  নির্মিত, মনিমুক্তাখচিত কংকন দ্বারা অলংকৃত হবে। সেখানে তারা রেশমের পোষাক পরিধান করবে (সূরা ফাতির আয়াতঃ৩২-৩৩)।

অর্থাৎ নবী-পাগল উম্মাতগণ পাপী হলেও শেষ পর্যন্ত বেহেশতে যাবে। নবীর উম্মাত পাপী হয়ে কবরে প্রবেশ করলেও প্রিয়নবীর কারণে নেককার হয়ে কবর হতে বের হবে (মাওয়াহেব লা দুনিয়া)। যারা প্রিয়নবীকে মানে তারা ছুন্নী। ছুন্নী ৩ প্রকার- ক. অত্যাচারী খ. মধ্যপন্থী গ. ঈমানে আমলে সবার উর্ধ্বে। মূলকথা ঈমানের দ্বারা অর্থাৎ প্রিয়নবীর বিশ্বাস  ও প্রেমে মানুষ বেহেশতী হয় এবং কোরআন-ছুন্নাহ ভিত্তিক জীবন পরিচালনা করলে ইহকালে মহা-সম্মানী, সুখী এবং পরকালে প্রথম জান্নাতবাসী হওয়ার সৌভাগ্য অর্জিত হয়। ছুন্নী জামাতের আক্বীদা - শিরিক ব্যতীত সব গুনাহ আল্লাহ যাকে চান তাকে মাফ করে দিবেন (সূরা নিছা- আয়াতঃ ৪৮)

        = আল্লামা ছৈয়দ ছাইফুর রহমান নিজামী শাহ  ( আগ্রাবাদের পীর সাহেব কেবলা )



শেয়ার করুন