Monday, February 27, 2017

ফেনীতে 'মানববন্ধন না কি রহস্য'



বিশেষ প্রতিনিধি:
শত চেষ্টা ও অনুরোধ করার পরও মামলা না করে মানববন্ধন করানো কোন রহস্য নয়তো? সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত রাফি দাখিল পরীক্ষায় অংশগ্রহন শেষে বাড়ি ফেরার পথে ২২ ফেব্রুয়ারী কাস্মির বাজার সড়কে দুর্বুত্তের চুনের পানিতে তার চোখ আক্রান্ত হয়। হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর যথারীতি ২৩ ফেব্রুয়ারী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে। সংবাদ কর্মীরা রাফি ও তার পরিবারের কাছ বহু চেষ্টা করেও ঘটনার সাথে জড়িত কারো নাম জানতে পারেনি। স্থানীয় প্রশাসন তাদের থানায় ডেকে আনলেও তারা কারো নাম এবং মামলা দায়েরে অপারগতা প্রকাশ করে। ২৭ ফেব্রুয়ারী সকালে ফেনী পৌরসভার জিরো পয়েন্টে সচেতন শিক্ষার্থী ও সরকারী কলেজ রাষ্ট্র বিজ্ঞানের ছাত্ররা রাফির উপর হামলার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী নুরসাত সুলতানা তৃপ্তর সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে সে জানায়, আহত ছাত্রী রাফির পরিবারকে অবহিত করে তারা মানববন্ধন করেছে। কিন্তু রাফির মা শিরিন আক্তারের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান। আমাদের প্রশ্ন হলো মানব বন্ধনে অংশগ্রহনকারীরা কি সত্যিই বিচার চায়? নাকি কোন দল বা ব্যক্তির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। কারণ তাদের কে ইতিপূর্বে সোনাগাজীতে ছাত্রী নির্যাতনের বহু ঘটনা ঘটলেও কোন সময় সোচ্চার হতে দেখা যায়নি। মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী কয়েকজন বাদে বাকিদের রাজনৈতিক পরিচয় নিয়ে ধোয়াসা তৈরী হয়েছে। বিষয়টি গুরত্বের সহিত বিবেচনার জন্য স্থানীয় প্রশাসন কে আহবান করছি।
সাংবাদিক আবুল হোসেন রিপন।

শেয়ার করুন