Sunday, March 5, 2017

চুয়াডাঙ্গাতে আলাউদ্দিনের আশ্চর্য প্রদীপ



বিশেষ প্রতিনিধি:
দেশের চুয়াডাঙ্গার গোকুলখালীতে নির্মিত বিদ্যুৎসাশ্রয়ী রিচার্জেবল লাইটে আলোকিত হচ্ছে, চুয়াডাঙ্গা ও পার্শ্ববর্তী জেলার বেশ কয়েকটি গ্রাম। এমনটি খবর প্রকাশিত হয় বিভিন্ন টিভি নিউজে। একসময় চুয়াডাঙ্গার অনেক এলাকায় সন্ধ্যা হলেই নেমে আসতো অন্ধকার, এখন সেখানে জ্বলছে আলো। আর এ আলোকিত হবার পথ তৈরি হয়েছে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী রিচার্জেবল লাইটে। কয়েক বছর আগে চুয়াডাঙ্গার গোকুলখালী গ্রামের মিস্ত্রি আলাউদ্দিন প্রথম বিদ্যুৎসাশ্রয়ী এ চার্জার লাইট তৈরি করেন। আর বর্তমানে আলাউদ্দিনের আশ্চর্য প্রদীপ নামেই এ লাইট আলো ছড়াচ্ছে সব খানে। 

এলাকাবাসী জানায়,বৈদ্যুতিক বাতির বিকল্প হিসেবে তারা এটি ব্যবহার করছে। আলাউদ্দিনের এ লাইটের ব্যাপক চাহিদা তৈরি হওয়ায় গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় গড়ে উঠেছে ২৫টিরও বেশি রিচার্জেবল লাইট কারখানা। জানায় যায় এরইমধ্যে জেলার চাহিদা মিটিয়ে এ চার্জার লাইট পাঠানো হচ্ছে পাশের জেলাগুলোতে। বিক্রেতারা জানালেন, আমদানি করা চার্জার লাইটের চেয়ে স্থানীয়ভাবে প্রস্তুত এ লাইটের গুণগতমান অনেক ভাল। তবে স্থানীয়রা বলেন, রিচার্জেবল লাইটের মাধ্যমে রাতের বেলা লোডশেডিংয়ের সময় শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখার সুবিধার পাশাপাশি, অন্যান্য দৈনন্দিন কাজও স্বাচ্ছন্দ্যে করতে পারছেন তারা। এদিকে, প্রস্ততকারকদের দাবি, লোডশেডিং সমস্যা ও বিদ্যুৎ খরচ কমাতে, এ রিচার্জেবল লাইট অত্যন্ত কার্যকর। তাই এ শিল্পের সম্প্রসারণে জেলায় বিসিক নগরী স্থাপনে সরকারের সহযোগিতা চান তারা।

শেয়ার করুন