Saturday, March 18, 2017

সারাদেশে ভাড়াটিয়া নিবন্ধন জোরদার


সারাদেশঃ
জঙ্গী তৎপরতা ঠেকাতে সারাদেশে ভাড়াটিয়াদের নজরদারির জন্য আলাদা কর্মকর্তা নিয়োগ করতে যাচ্ছে পুলিশ সদর দফতর। চট্টগ্রামের মিরসরাই এবং সীতাকুন্ডে জঙ্গী আস্তানা মেলার পর দেশব্যাপী ভাড়াটিয়া নিবন্ধন কার্যক্রম জোরদার করার এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, দুর্গম ও উগ্রবাদী তৎপরতা আছে এমন এলাকায় নজরদারি বাড়ানো উচিত।

প্রথমে মিরসরাই পরে সীতাকুন্ড। মাত্র এক সপ্তাহে চট্টগ্রামে একাধিক জঙ্গী আস্তানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। এসব ঘটনাতে ভূয়া তথ্য দিয়ে বাড়ি ভাড়া নিয়েছে জঙ্গীরা। সীতাকুন্ডে দুটি বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে নারী-শিশুসহ কয়েকজন। উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমান বিস্ফোরকও। একইভাবে বিস্ফোরক পাওয়া গিয়েছিল মিরসরাইয়েও। এর আগে ঢাকার রুপনগর, কল্যাণপুর, আজিমপুর, বসুন্ধরা কিংবা ঢাকার কাছাকাছি নারায়নগঞ্জ আশুলিয়ার মত এলাকা থেকেও ভূয়া পরিচয়ে বাড়ি ভাড়া নিয়ে তৎপরতা চালিয়েছে জঙ্গীরা।

জঙ্গী তৎপরতা নিয়ন্ত্রনের লক্ষ্যে গত বছর ঢাকায় ভাড়াটিয়া নিবন্ধনের উদ্যোগ নেয় পুলিশ। ফলে জঙ্গীদের রাজধানীতে অবস্থান হয়ে উঠে ঝুঁকিপূর্ণ। গোয়েন্দারা ধারনা করছেন সে কারনেই মিরসরাই এবং সীতাকুন্ডের মত প্রত্যন্ত এলাকাকে বেছে নিচ্ছে জঙ্গীরা। আর সে কারনেই দেশব্যাপী ভাড়াটিয়াদের নজরদারির ধারণার কথা ভাবছেন গোয়েন্দারা। এমন পরিকল্পনাকে সাধুবাদ জানিয়ে নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, জঙ্গীবাদের ঝুঁকিতে আছে এমন এলাকাগুলোর জন্য দরকার আরও পদক্ষেপ। তবে একের পর এক জঙ্গী আস্তানার সন্ধান মেলাকে পুলিশের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিটের সক্ষমতা বাড়ার ইঙ্গিত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার করুন