Thursday, March 2, 2017

সাতটি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার বিচার এখনও শেষ হয়নি


সারাদেশঃ
পুরোহিত সেবায়েতসহ সাতটি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার বিচার এখনও শেষ হয়নি। কোন একটি তদন্ত এখনও করতে পারেনি পুলিশ। বিচারের ধীরগতিতে আতঙ্ক বাড়ছে নিহতদের স্বজনদের মধ্যে। যদিও পুলিশ বলছে খুব কম সময়ে প্রতিটি হত্যার তদন্ত শেষ করা হবে।

২০১৬ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি খুন হন পঞ্চগড়ের সন্তোগড়ীয় মঠের অধ্যক্ষ জগ্বেশ্বর রায়। এ ঘটনায় একটি হত্যা ও দুটি অস্ত্র আইনে মামলা হয়। ওই বছরের ১৬ই জুন তিন মামলায় ১০ জনকে আসামী করে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। অভিযোগপত্রের পর কেটেছে ৮ মাস। কিন্তু শেষ হয়নি বিচার কাজ। বিচারের ধীরগতিতে আতঙ্ক বাড়ছে জগ্বেশ্বর রায়ের স্বজনদের। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি জানান, তিন মামলার দশ আসামীর মধ্যে পাঁচজন বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। গ্রেপ্তার আছে চার জন। আর হত্যা মামলা ছাড়া বাকি দুটির বিচার কাজ শুরু হয়েছে।

এদিকে নাটোরের খ্রিষ্টান ব্যবসায়ী সুনীল গোমেজের হত্যা মামলাটির অভিযোগপত্র এখনও দেয়নি পুলিশ। এমনকি মামলার অগ্রগতি নিয়েও কোন কথা বলেননি পুলিশ কর্মকর্তারা। তাই হত্যার বিচার নিয়ে অনিশ্চয়তায় আছেন সুনীলের স্বজনেরা। ২০১৬ সালের ৭ জুন ঝিনাইদহের পুরোহিত আনন্দ গোপাল এবং ১লা জুলাই মঠের সেবায়েত শ্যামানন্দ দাস
খুন হন। ৮ মাসেও আদালতে অভিযোগপত্র দেয়নি পুলিশ। যদিও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, শীঘ্রই অভিযোগপত্র দেয়া হবে।

এছাড়া টাঙ্গাইলের দর্জি নিখিল হত্যার মামলাটি এখনও তদন্তে আছে। এ মামলায় আটক সাত আসামীর মধ্যে ছয়জনই জামিনে রয়েছে। এছাড়া ২০১৬ সালে খুন হওয়া পাবনার সেবায়েত অনুকুল চন্দ্র ঠাকুর, কুষ্টিয়ার পল্লী চিকিৎসকসহ কোন হত্যার বিচার কাজ এখনও শেষ হয়নি।

শেয়ার করুন