Wednesday, May 24, 2017

ছাগলনাইয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই পরিবারের ৮জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের


বিশেষ প্রতিনিধি:
ছাগলনাইয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই পরিবারের ৮জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের অভিযোগ উঠেছে। উক্ত মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। মিথ্যা মামলায় কৃষক শাহ আলমের স্ত্রী মিনারা বেগম ও পুত্র মো. আরিফ (২৬) কে সোমবার ছাগলনাইয়া থানার পুলিশ গ্রেফতার করে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করেছে। প্রতিপক্ষের হামলা ও পুলিশের গ্রেফতারের ভয়ে কৃষক শাহ আলম ও তার পুরো পরিবার বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে। জানা যায়, তারা বাড়ি ছেড়ে  মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। 

উপজেলার উত্তর মন্দিয়া গ্রামের মৃত সোনামিয়ার পুত্র কৃষক শাহ আলমের (৫০) সঙ্গে একই বাড়ির তাহের আহাম্মদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল অনেক দিন ধরে। কৃষক শাহ আলম ও এলাকাবাসী জানায়, গত শনিবার রাত ৯টায় তাহের আহাম্মদের ঘর ভাংচুর লুটপাট, তার দু’পুত্র রেজাউল করিম ও আলী নেওয়াজকে মারধর ও স্ত্রী ময়না খাতুন সূরমাকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে গত রবিবার শাহ আলম তার স্ত্রী মিনারা বেগম, পুত্র পেয়ার আহাম্মদ, মোহাম্মদ আরিফ, মোহাম্মদ স্বপন, মোহাম্মদ রিপন, ও মোহাম্মদ লিটনসহ একই পরিবারের  ৮জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাতনামা ২/৩জনকে আসামী করে ছাগলনাইয়া থানায় একটি মামলা (নং- ২০) দায়ের করেন।

 সোমবার সরজমিনে উত্তর মন্দিয়া গ্রামে তাহের আহাম্মদের বাড়ীতে গিয়ে লোকজনের সাথে কথা বললে তারা বিষয়টি সম্পূর্ণ সাজানো নাটক বলেন এবং এ ধরনের কোন ঘটনাই ঘটেনি বলে সাংবাদিকদের জানান এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে, ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জাফর মো. ছালেহ জানান, তাহের আহাম্মদের সাথে শাহ আলমের জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে। মারামারি বিষয়টি আমার জানা নেই। ঘটনাটি তদন্ত করে মিথ্যা প্রমাণিত হলে মামলার ফাইনাল রিপোর্ট দেয়া হবে।

শেয়ার করুন