Sunday, June 4, 2017

জননন্দিত সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক- ইফতেখার হোসেন খন্দকার


আবদুল্লাহ রিয়েল:
সৃষ্টির পূর্বে থেকে মেধা, প্রতিভা আর অদম্য স্পৃহা যেখানেই থাকুক না কেন জ্বলে উঠবেই। হয়তো সাত তলায় নয়তো গাছতলার কুড়েঘরে থাকুক । এটা হয়তো সৃষ্টিকর্তার খেলা, অনেকটা নিয়তিতে নির্ধারিতই ছিল। দীর্ঘদিন সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক ও সহযোগি সংঘটনে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থাকা এক উদীয়মান তারুন্যের ইতিহাসের নাম ইফতেখার হোসেন খন্দকার।ভাগ্য, যোগ্যতা আর ক্লিন ইমেজ সহায় হলে মানুষ কতটা সহজে জনগনের মধ্যমনিতে পরিণত হয় তার উদাহরণ সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক ইফতেখার হোসেন খন্দকার। কেননা অতি স্বল্প সময়ে জেলা উপজেলার সমস্ত শ্রেণীর মানুষের কাছে খুবই জনপ্রিয় নেতাতে পরিণত হন তিনি। যতটা না তিনি নিজ দলের নেতাকর্মীদের কাছে প্রশংসনীয় তার বাহিরে সকল দলের কাছে তিনি গ্রহনযোগ্য ব্যক্তি। অনেকটা নিজের যোগ্যতা আর খুব ছোটবেলায় এক আদর্শবাদী পিতাকে দেখে তিনি বড় হয়েছেন।

বাবা মার হাতে শিখেছেনও হাতে কলমে কিভাবে গনমানুষের হৃদয় জয় করা যায়। যে সময় সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগ নামক শব্দটা শুনতে জনগন অভ্যস্ত ছিলোনা, নানা কুসঃস্কারে জর্জরিত ছিলো তখন আপামর জনতাকে ডাক দিয়েছিলেন রাজনীতির পতাকা তলে। দলের হাল ধরেছিলেন যিনি, তিনি হলেন উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক ইফতেখার হোসেন খন্দকার। মানুষটির চিন্তা চেতনায় ছিলেন মুজিব আ র্শের তাজা রক্ত ভরা ইতিহাস। রাজনীতির জন্য কিভাবে ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। পিতামাতাকে দেখে তিনি বুঝেছিলেন সততা আর বিশ্বাস কখনও পরাজিত হয় না। রাজনীতির এক অনুষ্ঠানে ইফতেখার হোসেন খন্দকার বলেন, ‘আমি লাভের জন্য রাজনীতি করি না। সততার সঙ্গে রাজনীতি করি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে দেশকে এগিয়ে নিতে রাজনীতি করি।

শেয়ার করুন