Monday, July 10, 2017

ফেনীতে ১০ বছরের শিশু আমেনা গৃহকর্তীর বর্বরতার শিকার জাহেলিয়াতের যুগকেও হার মানায়


বিশেষ প্রতিনিধি :
ফেনীতে ১০ বছরের শিশু আমেনা গৃহকর্তীর বর্বরতার শিকার জাহেলিয়াতের যুগকেও হার মানায়।
১০ বছরের ফুটফুটে শিশু আমেনা। যে বয়সে তার স্কুলে যাওয়ার কথা তখন কাজের খোঁজে গ্রাম থেকে শহরে আসে। শহরের বিরিঞ্চি এলাকার একটি বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ নেয়। সেখানে গৃহকর্তীর নিষ্ঠুরতার শিকার হয়ে সারা পিঠ ঝলসে যায় আমেনার। শনিবার রাস্তায় দেখে স্থানীয়রা তাকে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এক কান-দু’কান হয়ে ঘটনাটি জানাজানি হয়ে যায়। ফটোসাংবাদিক দুলাল তালুকদার নির্যাতিতা শিশুটির পরিবারের সন্ধান চেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়। দুলাল জানায়, মেয়েটি গৃহকর্তীর নাম আফরোজা ম্যাডাম ছাড়া আর কিছু বলতে পারেনি।

ওই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে সহকর্মী সাংবাদিকরাও তৎপর হয়। একপর্যায়ে গতকাল রাতে সদর হাসপাতালে ছুটে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) উক্য সিং। ততক্ষনে শিশুটির স্বজনরাও হাসপাতালে পৌছে যান। পরিচয় মেলে গৃহকর্তী আফরোজার। একপর্যায়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) উক্য সিং এর নেতৃত্বে আফরোজার বাসায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানের টের পেয়ে পালিয়ে যায় গৃহকর্তী আফরোজা ও তার পরিবারের সদস্যরা।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) উক্য সিং জানান, গৃহকর্তী আফরোজাকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. অসিম কুমার সাহা জানান, ঘটনাটি শুনে ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ফেনী - ২ আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি শিশু আমেনাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে আসেন মানবতার হাত বাড়িয়ে দেন।  তিনি এ সময়  তার খোঁজখবর নেন ও  তার যথা উপযুক্ত চিকৎসা ব্যবস্থা পরিচালনা করার জন্য ডাক্তার দের কে   নির্দেশ দেন তাঁর নির্দেশ  অনুযায়ী নির্যাতিতা শিশুটিকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানা য়ায়।

শেয়ার করুন