Sunday, July 30, 2017

নোয়াখালীতে গাছ কেটে নেওয়ার পথে ৫ বনদস্যুকে আটক


নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালী জেলার কবির হাট উপজেলায় সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার পথে ৫ বনদস্যুকে আটক করে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে কবির হাট থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গাছসহ ৫ বনদস্যুকে থানায় নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটে কবির হাট উপজেলার ৩নং ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের পূর্ব নবগ্রামের নিমতলা বাজার সংলগ্ন বেড়ি বাঁধ সড়কে।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, রবিবার সকাল ৮টায় উক্ত ইউনিয়নের পূর্ব নবগ্রামের নুর ইসলামের পুত্র দেলোয়ার হোসেন ছোট্টু, নিজাম উদ্দিন এবং তার সঙ্গীয় তিন বনদস্যু কবির মেস্ত্রী, মহিউদ্দিন, এমরান ভোররাতে নোয়াখালী খালের দুই কিলোমিটার বেঁড়ি বাধ সড়কে প্রায় ১০টি গাছ কর্তন করে সকাল ৮টায় একটি যান্ত্রিক ভ্যানে করে নেয়ার পথে বাধা দেয় স্থানীয়রা। পরে গাছসহ ৫ বনদস্যুকে আটক করে নিয়ে যায় কবির হাট থানা পুলিশ।

কবির হাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাসান জানান, দুটি গাছ সহ ৫ বনদস্যুকে থানায় আটক রাখা হয়েছে বাকি অর্ধকাটা গাছগুলি ঐ সড়কেই রয়েছে তদন্ত শেষে জানা যাবে ঘটানার সাথে আর কেউ জড়িত আছে কিনা। স্থানীয়রা জানান, ১৯৯৬ইং সালে বন্যা জলস্বাস থেকে রক্ষা করতে সবুজ বনায়ন প্রকল্পে ঐ সড়কের দুই পাশ্বে আকাশী, মেহগুনি, কড়ই ও ঝাড় গাছ সহ পাঁছ প্রজাতির প্রায় এক হাজার গাছ রোপন করে।

বিগত দুই বছর ধরে উপরোক্ত বনদস্যুরা প্রায় দুই শতাধিক গাছ কেটে রাতের অন্ধকারে নিয়ে যায়। এতে এলাকাবাসী বাধা দিলে এলাকাবাসীর উপর হামলা চালায় বনদস্যুরা নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক স্থানীয় ব্যক্তি জানান, নোয়াখালী বন বিভাগের সাথে অবৈধ যোগসাজসের মাধ্যমে স্থানীয় কামাল উদ্দিন বাবুল নামের প্রভাব শালী ব্যাক্তি নামে বেনামে দীর্ঘদিন যাবৎ উপরোক্ত বনদস্যুদের কাছে গাছ গুলো বিক্রি করে আসছে।

শেয়ার করুন