Wednesday, January 30, 2019

ফেনীতে কোচিং সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান


ফেনী শহরে বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে অভিযান চালিয়েছে ফেনী জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের। পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে কোচিং সেন্টার একমাস বন্ধ রাখার সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে চালু রাখায় মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মৌমিতা দাশ ফেনী শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে মুক্তবাজার এলাকায় সরনি কোচিং সেন্টারে ম্যাজিস্ট্রেট গেলে কোচিং কর্তৃপক্ষ প্রথমে অস্বীকার করলেও পরবর্তীতে শিক্ষকদের হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর দেখে তাদের সাথে যোগাযোগ করে নিশ্চিত হওয়ার পর কর্তৃপক্ষ কোচিং পরিচালনার কথা স্বীকার করে।

ওই প্রতিষ্ঠানে স্কুল ও কোচিং একই স্থানে পরিচালিত হলেও প্রতিটি ক্লাসের উপরে কোচিং এর নাম লাগানো অবস্থায় পাওয়া যায়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শ্রেণিকক্ষের উপর কোচিং এর নাম দ্রুত অপসারণ এবং আগামী একমাস কোচিং বন্ধ রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

পরে শহরের ডাক্তারপাড়ায় অন্বেষা, আদিবা এবং রিমিডি কোচিং সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করে ম্যাজিস্ট্রেট। কয়েকটি প্রতিষ্ঠান (কোচিং সেন্টার) তালাবদ্ধ পাওয়া গেলেও প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে ম্যাজিস্ট্রেট জনতে পারে, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে প্রতিদিন এসব কোচিং পরিচালনা করা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মৌমিতা দাশ জানান, আসন্ন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসরোধে দেশের সব কোচিং সেন্টার টানা একমাস অর্থাৎ ২৭ জানুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার সরকারি নির্দেশনা রয়েছে। নির্দেশনা মোতাবেক জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। সরকারী নির্দেশনা মানা না হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন