Thursday, September 19, 2019

ফেনী শহর থেকে ছিনতাই হওয়া সিএনজি তিনদিনে উদ্ধার, আটক-১

ফেনী প্রতিনিধিঃ ফেনী শহরের ট্রাংক রোড়স্থ বড় মসজিদ এলাকাধীন সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ড থেকে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সিএনজি অটোরিক্সা ছিনতাইকারী চক্রের তিন সদস্য কৌশলে একটি সিএনজি ছিনতাই করে নিয়েযায়।জানাযায় ছিনতাইকারী চক্রের ওই তিন সদস্য ঘটনার দিন স্ট্যান্ড থেকে,ফেনী সদর উপজেলাধীন ধলিয়া ইউনিয়নের সিএনজি চালক ও মালিক দেলোয়ার হোসেনের সিএনজিটি রিজার্ভ করে ভাড়ায় নিয়েযায়।

চালক যাত্রীবেশি ছিনতাই চক্রের ওই তিন সদস্যকে নিয়ে শহরের কুমিল্লা বাস স্ট্যান্ড এলাকা অতিক্রম করাকালীন, যাত্রীবেশি তিন ছিনতাইকারী হঠাৎ চালককে গাড়ী থামাতে বলে সিএনজি চালক ও মালিক দেলোয়ারকে সাথে নিয়ে,একটি চা দোকানে চা খেতে বসেন।চা খাওয়াকালীন কোন একফাঁকে চালকের চা এর কাপে ছিনতাইকারীরা চেতনা নাশক দ্রব্য মিশিয়ে দিয়ে,চালককে অচেতন অবস্থায় ওই দোকানে বসিয়ে রেখে কৌশলে সিএনজিটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

সিএনজি মালিক দেলোয়ার সুস্থ হয়ে গত ১৭ সেপ্টেম্বর সিএনজি ছিনতাইয়ের বর্ণনা উল্লেখ করে,ফেনী মডেল থানায় লিখিত একটি অভিযোগ দায়ের করলে,থানা অভিযোগটি মামলা হিসেবে গণ্যকরে ছিনতাই হওয়া সিএনজিটি উদ্ধারে তদন্ত শুরু করেন।এরি মধ্যে ১৮ সেপ্টেম্বর বিকের ৪ টার দিকে ফেনী শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনর্চাজ সুদ্বীপ রায় পলাশ,আব্দুল সালাম নামে সিএনজি ছিনতাইকারী চক্রের এক সদস্যকে আটক করেন।

সুদ্বীপ রায় পলাশ আটককৃত ছিনতাইকারী চক্রের ওই সদস্যকে দেলোয়ার হোসেনের ছিনতাই হওয়া সিএনজিটির বিষয় জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকলে,এক পর্যায়ে ছিনতাইকারী আব্দুল সালাম সিএনজিটি ছিনতাইয়ের ঘটনায় সে জড়িত বলে স্বীকার করলে,পুলিশ তার দেওয়া স্বীকারোক্তি মূলক তথ্যের উপর ভিত্তিকরে ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যার দিকে,সুদ্বীপ রায় পলাশের নেতৃত্বে ছিনতাই হওয়া দেলোয়ারের সিএনজিটি তিনদিন পর ফেনী সদরের ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজের সামনে থেকে উদ্ধার করেন।

শেয়ার করুন