Sunday, October 13, 2019

হায়দার ক্লিনিক পরীক্ষার-নীরিক্ষা ও সেবার নামে প্রতারণা


বিশেষ প্রতিনিধি:
ফেনী শহরের পশ্চিম ডাক্তার পাড়ায় অবস্থিত ডাঃ হায়দার ক্লিনিক (প্রাঃ) হাসপাতালে প্রতিনীহিত রোগীরা প্রতারিত হচ্ছে। এখানে দূরদূরান্ত থেকে শতশত রোগী আসলেও সঠিক সেবা পাচ্ছে না। সেবার নামে দৈন্দিন চলছে রমরমা ব্যাবসা। বাহির থেকে ঝকঝাঁকা হলে ও বিতরটা সেবার নামে কশাই খানায় পরিণিত। এমন একটি প্রতারণা খবর এসে পৌঁছলো নবচেতনা প্রতিবেদকের কাছে।

ভূক্তভূগী রোগী রেহানা আক্তার, বাসা পাঁছগাছিয়া অভিযোগ করে বলেন গত ০৬-০৯-২০১৯ ইং তারিখে আমি বেষ্টের উপর টিশ্যুতে একটি বিচি (স্থানীয় ভাষা) ব্যাথা জনিত কারণ ডাঃ মোঃ মরফুদুল ইসলাম (মারফ), এমবিবিএস(ঢাকা); বিসিএস (স্বাস্থ); এফসিপিএস (সার্জারী),বার্ণ ও প্লাস্টিক, সহকারী অধ্যাপক, আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ নোয়াখালীকে দেখাই উনি আমাকে দ্রুত অপারেশন করার জন্য পরামর্শ দেন এবং সাথে সাথে ডাঃ হায়দার ক্লিনিক (প্রাঃ) হাসপাতালে ভর্তী করিয়ে দেন। রাত ৯ টায় আমার অপারেশন হবে বলে আমাকে কিছু পরীক্ষা-নীরিক্ষা করানো জন্য বলেন। আমি পরীক্ষা করারনো জন্য কাউন্টারে যোগাযোগ করলে তাহারা আমাকে বলে পরীক্ষা গুলো (CBC,SERUM CREATINE, HBSAG,ANTI HCV) ঢাকা থেকে করাতে হবে এগুলো ফেনীতে হয় না। আমি তাদের কথা বিশ্বাস করে ২০০০ হাজার টাকা বিল পরিশোধ করি। যথারীতি আমার অপারেশন হয় (আপারেশনের বিল ১৬৯০০টাকা পরিশোধ করি) এবং পরের দিন বাসায় চলে যাই এই ভাবে হাসপাতালে যাচ্ছি আর আসচ্ছি দৌর্ঘ্য একমাস কিন্তুু আমি কোন প্রকার উপকার পাচ্ছি না। গত ১১/১০/২০১৯ ইং তারিখে আবার ডাঃ মোঃ মরফুুদুল ইসলামকে দেখালে উনি বলে আপনাকে বলছিলাম ঢাকা থেকে পরীক্ষা গুলো করাতে আপনি ফেনী থেকে কেন পরীক্ষার গুলো করালেন তখন আমি ডাঃ কে বলি আমিতো আপনাদের হসপিটালে পরীক্ষাগুলো করিয়েছি আমি রোগী আমি কি বুজি আপনারা ঢাকার কথাবলে ফেনীতে করাবেন।
তিনি উত্তর দেয় আমি জানিনা। এখন আমি খুব অসুস্থা বোধ করছি যে জন্য অপারেশন করানো হলো সেই সমস্যা ভালো হয়নি। এই ব্যাপারে আমি সকলের কাছে প্রতিকার চাই।
ডাঃ হায়দার ক্লিনিকের ম্যানেজার রাকিবের সাথে কথা হলে উনি বলেন আমাদের ঢাকায় যে লোক নমুনা নিয়ে যায় সে না আসাতে আমরা ফেনী থেকে পরীক্ষা করিয়েছি। প্রতিবেদক ম্যানেজারের কাছে প্রশ্ন করেন আপনাদের লেক নাই তা রোগী কেন বুজবে রোগীকে আপনারা ঢাকার কথা বলছেন। ম্যানাজার উত্তরে বলেন এগুলো সমস্যা নেই। আপনাদের সরাসরি কথা বলবো।
খোঁজ নিয়ে জানাযায়, প্রতিদিন কেউনা কেউ এভাবে হয়রানি হচ্ছে। রোগীরা সেবার নামে গলা কাঁটা মত প্রতারিত হচ্ছে। এমনটি হতে থাকলে জনগন আসল নকল চেনা বড় দায় হবে বলে ক্ষোণ প্রকাশ করে বলেন ভূক্তভূগী আগত রোগীরা। এখনি যদি হাসপাতালটির বিরুদ্ধে কোন ব্যাবস্থা না নিলে যেকোন সময় গটতে পারে দূর্ঘটনা।

শেয়ার করুন