Sunday, November 17, 2019

দাগণভূঁঞায় আপন চাচাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা।

ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলার ২নং রাজাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম জয়নারায়ন পুর গ্রামের (পাছু ভূঁইয়া বাড়ির) বাসিন্দা জনাব তরিকুল ইসলাম (৬৫) পিতাঃমৃত আব্দুল বারিক কে গত ১২/১১/১৯ ইং তারিখ সকাল ১০.০০ ঘটিকার সময় তার নিজ বাড়ির রাস্তার উপর আপন ভাই ও তার পরিবারবর্গ এলোপাতাড়ি লোহার রড় দিয়ে মারধর করে। একপর্যায়ে ভিকটিমের ভাতিজী লোহার চেনা দিয়ে তরিকুল ইসলামের মাথায় এবং হাতে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে ঘটনাস্থল থেকে তারা সবাই পালিয়ে যায়।সাথে সাথে এলাকাবাসী এসে পুলিশকে খবর দেয়।পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

 আশঙ্কাজনক অবস্থায় তরিকুল ইসলামকে তার পরিবারের লোকজন ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।তার মাথায় ১৩ টি সেলাই করা হয়।বর্তমানে এখনও তার শারীরিক কোন উন্নতি হয়নি।ঘটনা সূত্রে জানা যায় পারিবারিক সামান্য কথা কাটাকাটি থেকে এমন জঘন্য ঘটনাটি ঘটে।এলাকাবাসী এই ঘটনার তিব্র নিন্দা করে প্রশাসনের নিকট সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানিয়েছেন।এসূত্রে দগণভূঁঞা থানায় একই পরিবারের ৫ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে। আসামীগন হলো ১।সফিকুল ইসলাম (৫২),পিতা মৃত আবদুল বারিক,২।শারমীন সুলতানা সাথী(২৮),৩।মিনহাজ হোসেন(২৫),৪।রবিউল হাসান(১৯),সর্ব পিতা সফিকুল ইসলাম, ৫।রহিমা আক্তার(৪৫),স্বামী সফিকুল ইসলাম বাবুল।বর্তমানে তারা সবাই পলাতক আছে।

শেয়ার করুন