Wednesday, November 27, 2019

চট্টগ্রাম ৮ আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিবে ইনসানিয়াত বিপ্লব, বাংলাদেশ

নৈশ ভোট, একতরফা নির্বাচনের শংকা সত্বেও চট্টগ্রাম ৮ সংসদীয় আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে ইনসানিয়াত বিপ্লব, বাংলাদেশ স্বতন্ত্র প্রার্থী দিবে।
###################################

নৈশ ভোট, একতরফা নির্বাচনের শংকা সত্বেও চট্টগ্রাম ৮ সংসদীয় আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে ইনসানিয়াত বিপ্লব, বাংলাদেশ স্বতন্ত্র প্রার্থী দিবে।ইনসানিয়াত বিপ্লব,বাংলাদেশ এর মাননীয় চেয়ারম্যান আল্লামা ইমাম হায়াত এর নির্দেশনায় সম্ভাব্য প্রার্থী জনাব এমদাদুল হক যিনি বিগত একাদশ সংসদ নির্বাচনে ও একই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

সম্প্রতি আমাদের প্রতিবেদকের সঙ্গে ইনসানিয়াত বিপ্লব সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী জনাব এমদাদুল হক এর সাথে ফোনালাপে তিনি জানান,

বিগত সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের নজিরবিহীন সন্ত্রাস ও একচেটিয়া কেন্দ্র জবরদখলের মাধ্যমে নির্বাচনের নামে মারাত্মক প্রহসন সংগঠিত হয়েছিল।


০১) ভোটারদের মধ্যে ভয়াবহ আতংক ও এলাকায় ভীতিকর পরিবেশ তৈরি করা হয়েছিল,
০২) সর্বত্র সশস্ত্র দলীয় গুন্ডাবাহিনী লেলিয়ে জঘন্য ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করে এবং আমাদের ভোটারদের এক প্রকার জিম্মি করে রাখা হয়েছিল,
০৩) ভোট কেন্দ্রে আসতে আমাদের ভোটারদের হুমকি দিয়ে বাধা দেয়া হয়েছিল এমনকি বাড়ি ঘর থেকে বের হতে বাধা দেয়া হয়েছিল,
০৪) অনেকে কোন রকমে বেরিয়ে আসার পরও ভোট দিতে দেয়া হয়নি,
০৫) অনেক কেন্দ্রে এজেন্ট দিতে দেয়া হয়নি,
০৬) কিছু কেন্দ্রে এজেন্ট দেয়া হলেও তাদের বের করে দেয়া হয়েছিল,
০৭) নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার কে বলে কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি,

তিনি আশা করেন এবারের উপনির্বাচনে নির্বাচন কমিশন উপরোক্ত পয়েন্টের আলোকে সার্বিক পদক্ষেপ নিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন জনগনকে উপহার দিয়ে জনমনের শংকা দূর করবেন।

১% তথ্য পুরন মানবসেবায় আত্মনিমগ্ন জনগনের নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে আসার পথে বাধা হিসাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটা পুনর্বিবেচনা করা উচিত।

ইনসানিয়াত বিপ্লব, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এর সব শর্ত পুরন করা সত্বেও নিবন্ধন না হওয়ায় তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন এবং আশা করেন মাননীয় সুপ্রিম কোর্ট আপিল মামলার যথাযথ রায় প্রদানের মাধ্যমে মানবতার প্রাকৃতিক রাজনীতির প্লাটফর্ম ইনসানিয়াত বিপ্লব কে নির্বাচন কমিশন এর নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল হিসাবে আগামীর নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দিবেন।

তার মতে, এবারের উপনির্বাচনপ জনগণ ইনসানিয়াত বিপ্লবকে ভোট দিয়ে সকল দুর্দশার উৎস গোষ্ঠীবাদি অপরাজনীতি প্রত্যাখান করে সব মানুষের অধীকার-স্বাধীনতা-নিরাপত্তা ভিত্তিক মানবতার রাজনীতি ও মানবতার রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পথকে সুগম করবে।

তিনি জানান, ইনসানিয়াত বিপ্লব জনগণের নাগরিকত্ব ও সার্বিক অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং রাষ্ট্রকে গোষ্ঠীবাদি স্বৈরতা থেকে রক্ষায় জনগণকে সাথে নিয়ে মানবতার রাজনীতির সাধনা অব্যহত রাখবো।

সুষ্ঠ নির্বাচনের মাধ্যমে প্রকৃত জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলে যে কোন বিজয়ী প্রার্থীকে অভিনন্দন জানাতে প্রস্তুত ইনসানিয়াত বিপ্লব,  কিন্তু সাজানো জালিয়াতির মাধ্যমে নির্বাচিত ঘোষিত প্রার্থীকে গ্রহন করা জনমতের প্রতি অশ্রদ্ধা এবং গণতন্ত্র ও মানবাধিকার অস্বীকার হয়ে যায়।

শেয়ার করুন